HeaderDesktopLD
HeaderMobile

ছেলের জন্যই সবটুকু, ঘরেবাইরে আনন্দ করে পুজো কাটাবেন প্রিয়াঙ্কা

0

অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার (priyanka sarkar) এখন ভীষণই ব্যস্ত। একের পর এক ছবি তাঁর হাতে। দম ফেলার যেন ফুরসত নেই। যেহেতু পুজোর কটা দিন শ্যুটিং বন্ধ থাকবে, তাই শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততা এখন চরমে। তার মাঝেও খানিক সময় বার করে পুজোর আড্ডা দিলেন চৈতালি দত্তর সঙ্গে।পুজোর শপিং হয়েছে?

আমি নিজের জন্য কোনও পুজোর শপিং করিনি। কারণ এত গিফট সারা বছর ধরে পাই সেগুলো দিয়েই আমার হয়ে যাবে। আর আগের মতো সেভাবে বেরোনোর জো নেই। ফলে নিজের জন্য কিছু কেনাকাটা করার তাগিদ নেই। তবে আমার ছেলে সহজকে জামাকাপড় কিনে দিয়েছি। ও পছন্দমতো প্রিয় কার্টুন চরিত্রের নানা ধরনের জামা কাপড় কিনেছে। এছাড়া যাঁদের আমাকে উপহার দিতে হয়, তাঁদের জন্যও শপিং কমপ্লিট। ‘ এ বছরে পুজো কীভাবে কাটাবেন?

গত বছরের মতো এ বছরেও পুজোর দিনগুলো কিভাবে কাটাব তার কোনও পরিকল্পনা করিনি। যদি দেখি পরিস্থিতি আরেকটু স্বাভাবিক হয়েছে তবে ছেলে এবং কাছের বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে ডিনার বা লাঞ্চে যাব। এছাড়া বেশিরভাগ দিনই বাড়িতে থাকব। ছেলেকে সময় দেব। আমার কমপ্লেক্সে দুর্গাপুজো হয়। যেহেতু আমি নিজে কাজকর্মের মধ্যে খুব ব্যস্ত থাকি তাই সেভাবে সক্রিয় কোনও দায়িত্ব নিতে পারি না ঠিকই। তবে প্রতি বছরের মতো এবারেও অষ্টমীর দিন স্নান সেরে সকালে নতুন কাপড় পরে মাকে অঞ্জলি অবশ্যই দেব।

এছাড়া এখানে প্রতিদিন কিছু না কিছু ফাংশন, কালচারাল ইভেন্টস থাকে। ফলে সময়টা আমার এখানে কেটে যায়। এ বছর সহজ আর ওর কিছু বন্ধুবান্ধব ডান্স পারফরম্যান্স করবে। সেটা দেখতেও আমি খুব আগ্রহী।তবে একটা দিন অবশ্যই বেহালায় ছেলেকে নিয়ে আমার বাপের বাড়িতে কাটাব।ওখানে আমার বাবা-মা-বোন থাকে। ইচ্ছে আছে সহজকে নিয়ে কাছাকাছি বেশ কয়েকটা প্রতিমা দর্শনেও যাব। তবে কোনও বছরই বড় পুজোতে যাওয়া হয় না। গাড়িতে বসে যে ঠাকুর দেখা যায়, সেটাই দর্শন করি।যদি দেখি কোনও পুজোমণ্ডপে ছোট মেলা মতো বসেছে, বাচ্চারা এনজয় করতে পারে, সেরকম মেলাতেও নিয়ে যাব। সেখানে বাচ্চাদের জন্য বেলুন, চটপটা কিছু খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা থাকলে দারুণ হবে। তবে সবটাই নির্ভর করছে সরকারি নির্দেশের ওপর। দেখা যাক কী হয়।তবে সবচেয়ে বড় ব্যপার যে এইসময় কলকাতা শহর এত সুন্দর করে সেজে ওঠে, গাড়িতে বসেই পুজো সেলিব্রেশন হয়ে যায়। তবে পুজোর আগে তৃতীয়া পর্যন্ত আমার পুজো পরিক্রমা রয়েছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.