HeaderDesktopLD
HeaderMobile

জেগে আছি শরৎবনে

0

জগন্নাথদেব মণ্ডল

(১)

এই আশ্বিনে একলা ফেলে চলে গেছ আমায়
খবর নাওনি কীভাবে কাটবে পুজো
পয়লা থেকেই বৃষ্টি ধেয়ে এলো
নতুন গাছের মাথায় কাপড়ের মেঘলা সুতো
সমস্ত শরীর শিরশির করে শীতে
তোমার স্পর্শের তাপ শরীরে ধরে রাখি
তাকিয়ে দেখি
তোমার বিদায়টুকু কীভাবে কাঁদায় আমায়…

(২)

কাশের বনে ঘট ডুবে আছে
সাপের চোখ ধায় ফুলের পানে
পাঁচজন ভাতার আমার, ঘাস বীজ কুড়িয়ে খাই
তবু তোমাকে ভালোবাসি হে গাছ ; অর্জুন।

(৩)

রোগা হাড় হাতের বালিশে পেতে শুই
মুখে নাল যেন অবোধশিশু,বুকে ধুতুরার মন
উমাহীন আমি তৃতীয় চোখ জ্বেলে ভাত রাঁধি।

 

(৪)

দুব্বোর বনে ক্ষুর ছিল বুঝিনি
ডান কাঁধ কেটেছে ভেবেছি বাম হাঁটু বোধহয়
অপরাজিতার বনে লতার শাঁখা দুইহাতে পরে সধবার বেশ
অনন্ত-বিজয়া নেমেছে আকাশে
ভাঙা আয়নায় দেখি আমার বিধবামুখ টুকরো টুকরো হয়ে আছে।

 

(জগন্নাথদেব মণ্ডল ২০১৯ এ কৃত্তিবাস পুরস্কারে সম্মানিত সম্ভাবনাময় কবি, গদ্যকার।)
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.