HeaderDesktopLD
HeaderMobile

প্যান্ডেল হপিং হবে না বলে মন খারাপ? ডিজিট্যাল পুজো পরিক্রমায় প্যান্ডেলই এবার ঘরে

0 57

আশ্বিন মাসের শুরু থেকেই আমরা পুজোর আনন্দে মেতে উঠি। শুধু বাংলার না সারা দেশেরই অন্যতম এখ শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। পুজোর ক’টা দিনের আনন্দ, হৈ-হুল্লোড়ের জন্য আলাদা একটা অপেক্ষা থাকে সারাবছর ধরে। কিন্তু এ বছরের কঠিন পরিস্থিতিতে সব কিছুর মত পুজোর আনন্দটাও ধুলোয় মিশে গেছে। তাই এই বছর পুজোয় উত্তেজনার বদলে আছে ভয়। আপাতত “আসছে বছর আবার হবে” এই সান্ত্বনাই নিজেদের দিচ্ছে সকলে।

কিন্তু তাই বলে এ বছর কি কিছুই হবে না? ২০২০ সালে আমরা এক কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি, সকলেই জানি। করোনাভাইরাসের আতঙ্কে দীর্ঘদিন আমরা গৃহবন্দি। যাবতীয় আনন্দ উৎসব থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখেছেন প্রায় সকলেই। কিন্তু অনেকেরই মনে প্রশ্ন, ‘এবছর কি ঠাকুরের মুখটাও কি দেখতে পাব না?’

এই প্রশ্নের উত্তরেই এবার শুরু হতে চলেছে, “পুজো সংযোজন ২০২০ ৩৬০° ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি ওয়াক থ্রু।” বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান দুর্গাপুজোয় আপনি অংশগ্রহণ করতে পারবেন ভিড় এড়িয়েই। নিজের সময়মতো ঘরে বসে পরিবারের সকলকে নিয়ে বসে পুজো দেখতে পারবেন। সংক্রমণের উদ্বেগ ছাড়াই হাল্কা মনে পুজো উপভোগ করতে পারবেন সকলে।

augmentedpuja.com এর ৩৬০° ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ওয়াকথ্রু-র মাধ্যমে কলকাতার পুজো দেখা যাবে বিশ্বের যে কোনও প্রান্ত থেকেই। অনেক বঙ্গসন্তানই বাইরে থেকে কলকাতায় আসতে পারছেন না এ বছর। তাঁদের কথা মাথায় রেখে মোট ৫০টি সেরা দুর্গাপুজোর মণ্ডপের কাজ, প্রতিমা দর্শনের সুযোগ করে দেওয়া হবে সকলকে।

সামান্য অর্থের বিনিময়ে কলকাতার কাশী বোস লেন, ঠাকুর পুকুর এস বি পার্ক, বেহালা নতুন দল, হরিদেবপুর বিবেকানন্দ অ্যাথলেটিক ক্লাব, সন্তোষপুর লেকপল্লী এবং আমেরিকা, লন্ডন, অষ্ট্রেলিয়া সহ বিদেশের আরও দশটি পুজো দেখার সুযোগ থাকবে এখানে।

augmentedpujo.com এ গিয়ে সাবস্ক্রিপশন করতে পারেন যে কেউ। এই অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ হল ভার্চুয়াল ট্যালেন্ট হান্ট, পুজোর মণ্ডপ তৈরির কৌশল, পদ্ধতিকে বিস্তারিত ভাবে ৩৬০° উপায়ে দেখার সুযোগ।

বীনিত শর্মা, ডিরেক্টর অফ কনটেন্ট, এনভি ডিজিট্যাল জানান, “গত ১৭ বছর ধরে মিডিয়ায় কাজ করছি। বুঝতে পারছি, এ বছর সকলেই এই দমবন্ধ করা পরিবেশ থেকে বেরিয়ে একটু আনন্দ উপভোগ করতে চান। তাঁদের কথা মাথায় রেখেই ৩৬০° ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি ওয়াকথ্রু-র মাধ্যমে পুজো পরিক্রমা করার পরিকল্পনা নিয়েছি। কলকাতা সহ বিশ্বের মোট ৫০টি পুজো ঘরে বসে নিরাপদে থেকে তারা আনন্দ উপভোগ করতে পারবেন। সকলে ডিজিট্যালি কানেক্টেড থাকুন আর সুস্থ থাকুন।”

দুর্গাপুজো শুধু বাঙালিরা নয়, সারা বিশ্বের মানুষের অসংখ্য মানুষ উপভোগ করেন। সেই আনন্দে যাতে ভাটা না পড়ে, সে জন্যই  এই ডিজিটাল পুজো পরিক্রমার ভাবনা। হাতের একটি স্মার্টফোনের মাধ্য়মেই আপনার পুজো ভরে উঠতে পারে আনন্দে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.