HeaderDesktopLD
HeaderMobile

সোনার সঙ্গে শক্তির মিশেল, সেনকো-র পুজোসম্ভারে সৌন্দর্যের আরাধনা

0 33

আশ্বিন মাস। শুরু হল উৎসবের মরসুম। দুর্গা পুজো, লক্ষ্মী পুজো, তার পরে বাঙালির কালীপুজো, দীপাবলি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় কারও কারও বাড়িতেই পুজো হয়। আবার কেউ সারাদিন কাটিয়ে দেয় পাড়ার পুজোর মণ্ডপে বসে আড্ডা দিয়ে।

এবার যদিও পরিস্থিতি একটু অন্যরকম। পাড়ার মন্ডপে হয়তো সারাদিন বসে থাকতে পারবেন না। কিন্তু বাড়িতে তো আত্মীয়স্বজন, বন্ধু বান্ধবরা আসবেই। তখন কি আপনি সাধারণ ভাবেই থাকবেন? জানি একেবারেই না। ছিমছাম একটু সিম্পল সাজতে নিশ্চয়ই ইচ্ছে করবে। ঘরেই একটা সুতির লাল পাড় সাদা শাড়ির সাথে হাল্কা ছোট কিছু সোনার গয়না পরতে ইচ্ছে করবে। কিংবা বাড়িতে ছোট করে হলেও যাদের পুজো হবে তারা তো নিত্যনতুন সাজবেনই। শাড়ির সাথে মানানসই গয়নাও বদলাতে ইচ্ছে করবে তাদের।

Senco Gold to raise Rs 600 crore, files papers for IPO with SEBI - News : business (#1006513)

তাই এবারে সবার কথা ভেবে সেনকো গোল্ড এন্ড ডায়মন্ডস নিয়ে এল পুজোর গয়নার নতুন সম্ভার। গয়নায় ফুটে উঠেছে আশ্বিনের রূপ। কখনও পদ্মফুল, কখনও বা ময়ুরের পালক। আবার কখনও ত্রিশূলের ডিজাইনও। এই গয়নাগুলো দামের যে রেঞ্জ তাতে সাধারণ মানুষ কিনে তাদের ইচ্ছেপূরণ করতে পারবে বলে সেনকো মনে করছে।

প্রতিবারের মতো জামাকাপড়ে যেমন নতুন ট্রেন্ড এসেছে, তেমনই গয়নাগাঁটিতেও। সোনার দাম বেড়েছে মারাত্মক। ভারী গয়না কিনতে চাইলেও সামর্থ্য অনেকের থাকে না। তবুও পুজোর আগে আগে একটু সোনার গয়না কেনার ইচ্ছে অনেকেরই হয়। ছোট পেনডেন্ট বা হাতের নজর কাড়া ব্রেসলেট। সেনকো এমনই কিছু গয়না নিয়ে এসেছে যা দেখে সবাই যেমন আপনার গয়নার প্রশংসা করবে, তেমনই আপনার রুচিরও তারিফ করবে।

Senco's latest campaign highlighting Karigari features Vidya Balan - Exchange4media

পূর্ব ভারতের সবচেয়ে বড় গয়নার রিটেল শপ সেনকো গোল্ড এন্ড ডায়মন্ডসের এবারের গয়নার থিম হল ‘জয়োৎসব‘। এই এক্সক্লুসিভ কালেকশন পুজোর কথা মাথায় রেখেই করা হয়েছে। দেখে নিন এক ঝলক।

ত্রি-নয়নী গোল্ড পেনডেন্ট – একেবারে আনোখা এই ডিজাইন। হলফ করে বলা যেতে পারে মা দুর্গার ত্রিনয়ন নিয়ে এমন গয়না আগে কখনও দেখেন। পরতে পারেন ষষ্ঠীর রাতে একরঙা লাল শাড়ির সাথে। আপনার দিক থেকে কেউ চোখ ফেরাতে পারবে না।

শিব তিলক গোল্ড পেনডেন্ট – শিবের কপালের তিলকের কথা মাথায় রেখে এই পেনডেন্টটা তৈরি করা হয়েছে। নীলপুজো, শিব রাত্রির দিনে পরার জন্য এই গয়নাটি একেবারে পারফেক্ট।

শঙ্খ দুর্গা গোল্ড পেনডেন্ট – দুর্গা মায়ের মুখের আদলে তৈরি করা হয়েছে এই লকেটটি। যার থেকে আপনি নিজেও চোখ ফেরাতে পারবেন না। নবমীর রাতে বা দশমীতে মাকে বরণ করার সময় পরতে পারেন গয়নাটি।

ত্রিধারা গোল্ড পেনডেন্ট– গয়নাটির মাঝের অংশের কাজটুকু নজর কাড়বে সকলের। মাঝের বেল-পাতার ডিজাইন করা আছে। কম বয়সী মেয়েরা ড্রেস বা কুর্তির সঙ্গে অষ্টমীর সকালে পরতে পারে।

শিব রুদ্র গোল্ড পেনডেন্ট – গয়নার মাঝে রাখা হয়েছে একটা আসল রুদ্রাক্ষ। দুদিকে রয়েছে ত্রিশূলের মুখ। অপূর্ব ডিজাইনের এই গয়নাটির সাথে সুন্দর করে সাজতে পারলে হা করে মানুষ আপনাকেই দেখবে।

পদ্মফুলের ব্রেসলেট – সন্ধিপুজোর সময় প্রয়োজন হয় ১০৮টি পদ্মফুলের। গোলাপি রঙের নরম পদ্মফুলকে মাথায় রেখেই এই গয়না তৈরি করা হয়েছে। পুজোর সময় এই গয়নাটি পরলে আপনি সকলের মধ্যে অনন্য হয়ে উঠবেন তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন।

ত্রিশূল লকেট – অষ্টমীর সকালে অঞ্জলীর জন্য এই গয়নাটি একেবারে পারফেক্ট। লাল পাড় দেওয়া সাদা শাড়ির সঙ্গে এমন একটি গয়নায় আপনাকে দেখতে লাগবে একেবারে আলাদা। আর যদি একান্তই বাইরে না বেরোতে চান তাহলে ঘরেও পরে থাকতে পারেন।

গণেশ লকেট – সপ্তমীর দিন হয় কলা-বৌ স্নান। তাই ওইদিন এমনটা লকেটে পরে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন। এই লকেটের ডিজাইন এতই সূক্ষ্ম আর সিম্পল, পুজোর পর এমনিও পরে থাকতে পারেন।

ময়ূরের পালকের লকেট – কখনও ভেবেছেন এমন একটা গয়না হতে পারে? আপনার গলায় সোনার তৈরি ছোট্ট ময়ূরের পালক। ভাবতে পারছেন কেমন লাগবে! গয়নাটাকে হাইলাইট করার জন্য এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পোশাক পরুন। লোকের ভূরি ভূরি প্রশ্ন আসবে আপনার কাছে।

ত্রিশক্তি স্বস্তিক লকেট – দুর্গা পুজো হোক লক্ষ্মী পুজো এই গয়নাটি আপনি যেকোন সময় যেকোন মুহূর্তে পরতে পারেন। শাড়ি বা ড্রেস। শুভশক্তির জয়ে যখন আমরা সকলেই মেতে উঠি তখন এই গয়নাটি পরলে আপনি হয়ে উঠবেন অনন্যসাধারণ।

মা পেনডেন্ট – শুধু কি দুর্গা ঠাকুর, লক্ষ্মী ঠাকুরের কথা ভাবলে চলবে! নিজের মায়ের কথা ভাববেন না! এই উৎসবে নিজের মাকেও সাজিয়ে তুলুন। তাকে চমকে দিয়ে উপহার দিন এই লকেটটি। মায়ের মুখে হাসি ফুটবেই।

 

শুভ স্বস্তিক লকেট – দীপাবলি উৎসবের জন্য এই লকেট। ঘরের মাঝে ফুল বা আলো দিয়ে আমরা ছোট স্বস্তিক চিহ্ন তো আঁকিই। এটাকে আমরা শুভ মনে করি। তাই তেমন একটা স্বস্তিক চিহ্নের লেকেট দিয়ে আপনার নিজের মুখে নিজেই হাসি ফোটাতে পারেন।

ওম গয়না – এই গয়নাটি যে কোনও সময়ের জন্য। পুজো হোক বা পুজোর পর বাড়ির যে কোনও শুভ অনুষ্ঠান। আপনি যদি একটু ঠাকুর বিশ্বাসী হন তাহলে সবসময় পরে থাকতে পারেন এই লকেট। ওম লেখা ব্রেসলেটও রয়েছে আপনার জন্য। অনেকেরই আংটি পরার প্রতি একটা ভালবাসা আছে। নতুন নতুন আংটি কিনে বিভিন্ন ড্রেসের সঙ্গে মিলিয়ে আংটি পরতে ভালবাসেন অনেকে। তাই পুজোর সময় ওম লেখা আংটিও কিনতে পারেন।

শ্রী লেখা আংটি – আপনার আংটির কালেকশনে এই গয়নাটিও যোগ করতে পারেন। একটু ডিফারেন্ট যা সকলে পরছে না এমন একটা গয়না পরতে কার না ইচ্ছে করে! তাই কিনে ফেলুন এমন একটি আংটি।

গয়নার নতুন ডিজাইনের পাশাপাশি সেনকো পুজোর আগে বেশ কিছু নতুন অফারও দিচ্ছে। দেখে নিন এক ঝলকে-

১. হিরের মূল্যের উপর ২৫ শতাংশ ছাড় পাবেন। 
২. সোনার গয়নার মজুরির উপর পেয়ে যাবেন ৮ শতাংশ ছাড়। 
৩. প্লাটিনাম গয়নার মজুরিতে পাবেন ২০ শতাংশ ছাড়। 
৪. গ্রহরত্নের মূল্যের উপর পেয়ে যাবেন ১৫ শতাংশ ছাড়। 
৫. গসিপ জুয়েলারি রেঞ্জের মূল্যের উপর ১৫ শতাংশ ছাড় পাবেন। 
৬.  পুরোনো সোনার বদলে সোনা কিনতে পারেন। তার অতিরিক্ত কোন সোনা বা টাকা কাটা হবে না। 
৭. ৩০০ টাকা ছাড়ও দেয়া হবে সোনার পর।
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.