HeaderDesktopLD
HeaderMobile

বিজয়া দশমীতে ঘরেই বানান মিষ্টি, রইল ছানা টোস্টের রেসিপি

0

বিজয়া দশমীর দিন বাড়িতে মিষ্টি তৈরির রীতি বহুযুগের। এখন ব্যস্ততার যুগে আর সময় নেই অত খাটনির, তাই দোকান থেকে কিনে এনেই কাজ সারেন অনেকে। কিন্তু কেনা মিষ্টিতে কি আর ঘরের সেই স্বাদ আসে! এবার কিন্তু ট্রাই করে ফেলতে পারেন এক সহজ রেসিপি, বাড়িতেই। ছানার টোস্ট (chhana toast)। সহজ উপকরণ ও সরল পদ্ধতিতে বানানো এই মিষ্টি অতিথিদের মন জয় করবেই।

মূল উপকরণ: ৫০০ গ্রাম ছানা, ৬ চামচ নারকেলগুঁড়ো, ৪ চামচ ময়দা, ২ ফোঁটা অরেঞ্জ ফুডকালার, এক চিমটি কোকো পাউডার
চিনির রস তৈরির উপকরণ: সাড়ে তিন কাপ চিনি, দেড় কাপ জল, ১/৪ কাপ দুধ ও সমপরিমাণ জল মেশানো, ২-৩ ফোঁটা ক্যাওড়া জল।

খোয়া আইসিংয়ের উপকরণ: ১৫০ গ্রাম খোয়া, ২ চামচ গুঁড়ো চিনি, ২ ফোঁটা গোলাপ জল, ২ চামচ দুধ

‘অলক্ত’ রঙ লাগল আমার অকারণের সুখে!

প্রণালী: সবার প্রথমে চিনির রস তৈরির সমস্ত উপকরণ একসাথে ভাল ভাবে মিশিয়ে ফুটতে দিতে হবে। অন্যদিকে ছানার সঙ্গে নারকেল, ময়দা, ফুডকালার ও কোকো পাউডার ভাল ভাবে মিশিয়ে সম পরিমাণে ছোট ছোট চৌকো শেপে করে নিতে হবে। এর পরে ফুটন্ত চিনির রসে ফেলে দিতে হবে সেগুলি।

১৫ মিনিট ধরে ভালভাবে ফুটতে দিতে হবে। এই ১৫ মিনিট সময়ের মধ্যে ১/৪ কাপ জল বারবার করে দুই থেকে তিনবার মেশাতে হবে। এর পরে গ্যাস থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করতে হবে এবং আলাদা জায়গায় মিষ্টিগুলোকে তুলে নিতে হবে।

অন্যদিকে খোয়া আইসিংয়ের জন্য সমস্ত জিনিস একসঙ্গে একটা পাত্রে খুব হালকা আঁচে ভালভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। মাখা মাখা হলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করতে হবে। এর পরে প্রত্যেকটা মিষ্টির উপরে খোয়া আইসিং দিতে হবে এবং শুকনো নারকেল কোরা ভালে ভাবে ছড়িয়ে দিতে হবে। উপর থেকে পেস্তাকুচি ছড়িয়ে দিলে ভাল লাগবে।

ফুড ভ্যালু: ছানায় ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ডি, ফসফরাস ও প্রোটিন রয়েছে প্রচুর পরিমাণে। নারকেলে ফাইবার, কপার ও ম্যাঙ্গানিজ থাকে।
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.