HeaderDesktopLD
HeaderMobile

পুজোয় পাতে পড়ুক ওপার বাংলার বিখ্যাত পদ, সবজি দিয়ে ইলিশ মাথার চচ্চড়ি

0 115

মধুরিমা বসু

ঘটি হোক বা বাঙাল, মাছ খেতে ভালবাসেন না এমন বাঙালির সংখ্যা খুব কম। খাবারের পাতে সপ্তাহে অন্তত তিন চারদিন মাছের কোন না কোন পদ তো থাকেই। আর এই পুজোর মরশুমে রোজকার মাছের ঝোলের পরিবর্তে একটু অন্যরকম পদ রাঁধতে পারলে জমজমাট হয়ে উঠবে দুপুরের খাওয়া।

নদীপ্রধান দেশ বলেই বাংলাদেশে এমন অনেক মাছ পাওয়া যায় যা এখানকার শহরে সচরাচর দেখা যায় না। বাংলাদেশের ইলিশ মাছ তো জগতবিখ্যাত। শুধু কাঁচা লঙ্কা চিরে বা সর্ষে দিয়ে মাখো মাখো ঝোলই না, ইলিশের এতরকম পদ আছে যা বাঙালরাই সব রেঁধে উঠতে পারেন না।

Amid coronavirus gloom get set for a 'Hilsa' boom - OrissaPOST

পূর্ববাংলার খাবারের স্বাদ নিয়ে তো কোন কথাই হবে না। কখনও খুব ঝাল, কখনও বা মিষ্টি মিষ্টি। সে যেমনই হোক, খাওয়ার পর মুখে স্বাদ লেগে থাকে বহুক্ষণ। পূর্ববাংলার মানুষরা একটু তেলঝালমশলা দিয়ে রাঁধতে পছন্দ করেন। এখানকার বিখ্যাত এক পদ হল ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুর শাক।

পুজোর ক’টা দিন একরকম খাবার না খেয়ে একটু অন্যধারার সহজ পদ নিজের হেঁসেলেই তৈরি করতে পারেন। কচু খেলে যদি গলা ধরে, তাহলে কচুর বদলে নানা রকম সবজি দিয়ে ইলিশের মাথা রাঁধতে পারেন। নোয়াখালির এই সাধের রান্নার স্বাদ লেগে থাকবে বাড়ির সকল সদস্যের মুখে।

A Homemaker's Diary: Ilish Macher Matha die Pui Shaaker chorchori (Malabar Spinach cooked with Hilsa Head)

কী কী লাগবে এই পদ রাঁধতে।

রান্না করতে লাগবে, একটা গোটা ইলিশ মাছের মাথা, একটা বড় কাঁচকলা, বড় সাইজের একটা বেগুন টুকরো করে কাটা, লাল লঙ্কার গুঁড়ো এক চা চামচ, রাঁধুনি পেস্ট এক চা চামচ, হলুদ এক চা চামচ, কালো জিরে পেস্ট এক চা চামচ, নুন স্বাদ মতো, চিনি এক চামচ, অর্ধেক কাপ সর্ষের তেল, অর্ধেক চা চামচ রাঁধুনি, দুটো সবুজ লঙ্কা।

কেমন করে রাঁধবেন পদটি।

প্রথমেই ইলিশ মাছের মাথাটা ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। তার পর হলুদ, নুন মাখিয়ে একটা পাত্রে ঢেকে রাখতে হবে। এর পর বেগুন আর কাঁচকলা অর্ধেক করে কেটে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। একইভাবে হলুদ নুন মাখিয়ে কিছুক্ষণ একটা পাত্রে রেখে দিতে হবে।

এর পরে একটা কড়াই, বা প্যানে সরষের তেল গরম করে নিতে হবে ‌। গরম সরষের তেলে বেগুন আর কাঁচকলা ভালো করে ভেজে তুলে নিন। বাকি তেলটুকুতে ইলিশের মাথাটা খুব ভালো করে কিছুক্ষণ ধরে ভেজে তুলে নেবেন।

এবার গরম তেলে অর্ধেক চা চামচ রাঁধুনি দিয়ে দিন। হাতা দিয়ে একটু নেড়ে এক চা চামচ রাঁধুনি পেস্ট আর কালো জিরে পেস্ট দিয়ে দিন। সঙ্গে স্বাদ মত নুন আর চিনি দিতে ভুলবেন না। অল্প একটু লাল লঙ্কার গুঁড়ো দিতে পারেন। তাতে স্বাদ আর রঙটাও অন্যরকম হবে। এবার এরমধ্যে ভাজা বেগুন আর কাঁচকলা দিয়ে খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর দুটো কাঁচা লঙ্কা দিয়ে দিন এর মধ্যে। অর্ধেক কাপ জল দিয়ে পুরোটা খুব ভাল করে মিশিয়ে ৫ থেকে ৬ মিনিট ঢাকা দিয়ে রাখুন।

এবার সবজিটা ভাল করে রান্না করা হয়ে গেলে ভাজা মাছের মাথাটা এর মধ্যে দিয়ে দিন। গ্যাসের আঁচ কমিয়ে আসতে আসতে হাতা দিয়ে পুরোটা নাড়তে থাকবেন। পুরোটা শুকিয়ে গেলে আপনার রান্না রেডি।
এবার গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.