HeaderDesktopLD
HeaderMobile

কোলাহলে পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র শুনতে পান না! মোবাইল দেখেই মন্ত্রোচ্চারণ করুন

0 1,510

বেশিরভাগ নিষ্ঠাবান বাঙালিই দুর্গাপূজায় পুষ্পাঞ্জলি দিয়ে থাকেন। খুব ভোরে উঠে, স্নান করে পরিষ্কার জামাকাপড় পরে, নির্দিষ্ট সময় মণ্ডপে উপস্থিত হন। পুষ্পাঞ্জলির সময় প্রথম সারিতে অর্থাৎ পুরোহিতের কাছে বসার চেষ্টা করেন। প্রথমসারিতে বসা নিয়ে অল্পবিস্তর ঠেলাঠেলি, মন কষাকষি, এমনকি মৃদু ঝগড়াও চলে মণ্ডপে মণ্ডপে। এর পিছনে আছে দুটি কারণ। প্রথম কারণ, সবাই চান তাঁর হাতে যেন পুষ্পাঞ্জলির ফুল ঠিক মতো এসে পৌঁছায়। দ্বিতীয় ও অন্যতম কারণ, যাতে পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র তাঁরা ঠিকমতো শুনতে পান।

দুর্গাপূজায় পুষ্পাঞ্জলি দেওয়ার ভিড় সরস্বতী পুজোর চেয়ে স্বাভাবিক কারণেই কয়েকগুণ বেশি হয়। তাই মণ্ডপের ভেতরের কোলাহলে পুরোহিতের অর্ধেক মন্ত্রই শোনা যায় না। কখনও কখনও পুরোহিতের উচ্চারণের দোষে পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র বোঝা যায়না। মন্ত্র বোঝার দিকে মন দিতে গেলে, পরের লাইনের মন্ত্র পুরোহিত উচ্চারণ করতে শুরু করে দেন। তখন অত্যন্ত মৃদু গলায় কানে শোনা শব্দগুলো উচ্চারণ করতে হয়, যাতে পাশের লোকে বুঝতে না পারে। পুরোহিতের সঙ্গে তাল মিলিয়ে মন্ত্র উচ্চারণ করতে না পারার জন্য, মনে মনে মায়ের কাছে ক্ষমাও চাইতে হয়।

10 things to experience in Kolkata during Durga Puja - Isrg KB

কোনও কোনও মণ্ডপে অবশ্য লাউডস্পিকার থাকে। কিন্তু লাউডস্পিকারগুলি মণ্ডপের বাইরে থাকায় মন্ত্রের আওয়াজ চলে যায় দূরে। এর ফলে মণ্ডপের মধ্যে থাকা মানুষগুলি পুরোহিতের বলা মন্ত্র শুনতে পান না। কিংবা অবোধ্য কিছু শব্দ ভেসে আসে মণ্ডপের মধ্যে। বিষণ্ণ মন নিয়ে পুষ্পাঞ্জলি দিয়ে ফেরেন নিষ্ঠাবান ভক্তের দল।

অথচ এইসব সমস্যার সমাধানের উপায় আমাদেরই হাতে আছে। পুষ্পাঞ্জলি দেওয়ার আগে মন্ত্রগুলি আগে থেকেই আপনার মোবাইলে খুলে রাখুন বা বাড়ি থেকেই কাগজে লিখে নিয়ে যান। পুরোহিত মন্ত্র উচ্চারণ করার সময় মোবাইলের স্ক্রিন থেকে, বা চিরকুট দেখে মন্ত্র উচ্চারণ করুন। তার আগে অবশ্যই মনকে শান্ত করুন এবং নিজেকে মা দুর্গার পায়ে সমর্পণ করুন।

File:Pushpanjali - Maha Ashtami - Durga Puja - Biswamilani Club - Padmapukur Water Treatment Plant Road - Howrah 2015-10-21 6086.JPG

পুরোহিত মশাই আপনার মাথায় মন্ত্রপূত গঙ্গাজল ছিটিয়ে দেবেন। আপনার হাতে ফুল ও বেলপাতা এসে যাওয়ার পর, পুরোহিত যখন পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র উচ্চারণ করতে থাকবেন, আপনিও মোবাইলের স্ক্রিন বা চিরকুট দেখে মন্ত্রোচ্চারণ শুরু করুন। অনেক পুরোহিত পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্রোচ্চারণের আগে মা দুর্গার ধ্যানমন্ত্রটি উচ্চারণ করেন, অনেকে আবার সরাসরি চলে যান পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্রে।

মা দুর্গার ধ্যান মন্ত্র

জটাজুট সমায়ুক্তাম অর্ধেন্দুকৃত শেখরম।
লোচনত্রয় সংযুক্তা পূর্ণেন্দু চ দৃশাননম।
অতসী পুষ্প বর্ণাভা সুপ্রতিষ্ঠাং সুলোচণা।
নবযৌবন সম্বন্তা সর্বাভরণ ভূষিতাং।
সুচারু বদনাং তদ্ভগ পীনোন্নত পয়োধরাং।
ত্রিভঙ্গ কাল সংস্থানাম মহিষাসুর মর্দিনীম।
বিনানায়ত চদস্পর্শ দশবাহুতা মণ্ডিতা।
ত্রিশূলং দক্ষিণে তে অন্তরবং চক্রং ক্রমান্ধদম।
তীক্ষ্ম বাণং তথা শক্তি দক্ষিণে সুপিতিতয়েৎ।
খেটকং পূর্ণ চাপঞ্চ পাশমং কুশমেব চ।
ঘণ্টায়াং বা পরশুবা পি বামতৎ সন্নিবেশয়েত।
অধস্থান মহিষম্তদ্ভগ ইষরষ্ট্রং প্রদশ্চয়েত।
রক্তারক্তি পিবাং দং চ রক্ত বিস্ফুরিতে ক্ষণম।
বেষ্টিতং নাগপাশেন ভ্রুকুটি ভীষণাননম।
কিঞ্চিতদূর্বং তথা বামমং ভুষ্টং মহিষোপরি।
দেব্যাস্তু দক্ষিণং পাদং চ মমসিংহোপরিস্থিতম।
স্তুয়মানন্চ তদ্রুপ মমরঃ সন্নিবেশয়থৎ।
প্রসন্নবদনাং দেবী সর্বকামফলপ্রদা।
উগ্রচণ্ডা প্রচণ্ডা চ চণ্ডোগ্র চণ্ডনায়িকা।
চণ্ডা চণ্ডবতে চৈব চণ্ডরূপাতি চণ্ডিকা।
আদিশক্তি ভিরস্কাদি শততং পরিবেশিতা।
শ্রিংচয়ে জগতা ধাত্রী ধর্ম কামার্থ মোক্ষদা।।
জয়ন্তী মঙ্গলা কালী ভদ্রকালী কপালিনি।
দুর্গা শিবা ক্ষমা ধাত্রী স্বাহা স্বধা নমোহস্তুতে।।

সপ্তমীর পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র

প্রথম দফার মন্ত্র: নমঃ আয়ুর্দ্দেহি যশো দেহি ভাগ্যং ভগবতি দেহি মে |

পুত্রান্ দেহি ধনং দেহি সর্ব্বান্ কামাশ্চ দেহি মে ||

দ্বিতীয় দফার মন্ত্র- হর পাপং হর ক্লেশং হর শোকং হরাসুখম্ |

হর রোগং হর ক্ষোভং হর মারীং হরপ্রিয়ে ||

এষ সচন্দন-পুষ্পবিল্বপত্রাঞ্জলিঃ নমঃ দক্ষযজ্ঞ বিনাশিন্যে মহাঘোরায়ৈ যোগিনী কোটিপরিবৃতায়ৈ ভদ্রকাল্যৈ ভগবত্যৈ দুর্গায়ৈ নমঃ ||

তৃতীয় দফার মন্ত্র-  সংগ্রামে বিজয়ং দেহি ধনং দেহি সদা গৃহে |

ধর্ম্মার্থকামসম্পত্তিং দেহি দেবী নমোহস্তু তে ||

এষ সচন্দন-পুষ্পবিল্বপত্রাঞ্জলিঃ নমঃ দক্ষযজ্ঞ বিনাশিন্যে মহাঘোরায়ৈ যোগিনী কোটিপরিবৃতায়ৈ ভদ্রকাল্যৈ ভগবত্যৈ দুর্গায়ৈ নমঃ ||

প্রণাম মন্ত্র উচ্চারণ করুন :-  সর্বমঙ্গলমঙ্গল্যে শিবে সর্বার্থসাধিকে |

শরণ্যে ত্র্যম্বকে গৌরী নারায়ণী নমোহস্তু তে ||

অষ্টমীর পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র

হাতে ফুল বেলপাতা নিয়ে বলুন,
প্রথম দফার মন্ত্র-  নমঃ মহিষগ্নি মহামায়ে চামুণ্ডে মুণ্ডমালিনী |
আয়ুরারোগ্য বিজয়ং দেহি দেবী নমোহস্তুতে ||
দ্বিতীয় দফার মন্ত্র- নমঃ সৃষ্টিস্থিতিবিনাশানাং শক্তিভূতে সনাতনে |
গুণাশ্রয়ে গুণময়ে নারায়ণী নমোহস্তু তে ||
তৃতীয় দফার মন্ত্র- নমঃ শরণাগতদীর্নাত পরিত্রাণপরায়ণে | সর্বস্যার্তিহরে দেবী নারায়ণী নমোহস্তু তে ||
এষ সচন্দন-পুষ্পবিল্বপত্রাঞ্জলিঃ নমঃ দক্ষযজ্ঞ বিনাশিন্যে মহাঘোরায়ৈ যোগিনী কোটিপরিবৃতায়ৈ ভদ্রকাল্যৈ ভগবত্যৈ দুর্গায়ৈ নমঃ ||
প্রণাম মন্ত্র উচ্চারণ করুন :- জয়ন্তী মঙ্গলা কালী ভদ্রকালী কপালিনী |
দুর্গা শিবা ক্ষমা ধাত্রী স্বাহা স্বধা নমোহস্তু তে ||

নবমীর পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র

হাতে ফুল বেলপাতা নিয়ে বলুন,
প্রথম দফার মন্ত্র-  কালী কালী মহাকালী কালীকে কালরাত্রিকে |
ধম্মকামপ্রদে দেবি নারায়ণী নমোস্তু তে ||
দ্বিতীয় দফার মন্ত্র-  লক্ষ্মী লজ্জে মহাবিদ্যে শ্রদ্ধে পুষ্টি স্বধে ধ্রুবে |
মহারাত্রি মহামায়ে নারায়ণী নমোহস্তু তে ||
তৃতীয় দফার মন্ত্র- কলাকাষ্ঠাদিরূপেণ পরিণামপ্রদায়িনি | বিশ্বস্যোপরতৌ শক্তে নারায়ণী নমোহস্তু তে ||
এষ সচন্দন-পুষ্পবিল্বপত্রাঞ্জলিঃ নমঃ দক্ষযজ্ঞ বিনাশিন্যে মহাঘোরায়ৈ যোগিনী কোটিপরিবৃতায়ৈ ভদ্রকাল্যৈ ভগবত্যৈ দুর্গায়ৈ নমঃ ||
প্রণাম মন্ত্র উচ্চারণ করুন :-সর্বস্বরূপে সর্বেশে সর্বশক্তিসমন্বিতে |
ভয়েভ্যস্ত্রাহি নো দেবি দুর্গে দেবি নমোহস্তু তে ||

 

(তথ্য সহায়তা: প্রদ্যোৎকান্তি ভট্টাচার্য্য, বীরভূম)

১৪২৭ সনের অষ্টমীর নির্ঘন্ট

অষ্টমী তিথি আরম্ভ:

বাংলা তারিখ– ৬ কার্তিক, ১৪২৭, শুক্রবার
ইংরেজি তারিখ – ২৩/১০/২০২০
সময় – বেলা ১২ টা ৪ মিনিট ২০ সেকেন্ডে অষ্টমী পড়বে।

অষ্টমী তিথি শেষ:

বাংলা তারিখ – ৭ই কার্তিক, ১৪২৭, শনিবার
ইংরেজি তারিখ – ২৪/১০/২০২০
সময় – সকাল ১১টা ২২ মিনিট ৪১ সেকেন্ড পর্যন্ত অষ্টমী থাকবে।

সূর্যোদয়- ঘ ৫।৪২, সূর্য্যাস্ত ঘ ৫।২, পূর্বাহ্ন ঘ ৯।২৮

পুর্বাহ্নের মধ্যে শ্রীশ্রী শারদীয়া দুর্গাদেবীর অষ্টম্যাদিকল্পারাম্ভ ও কেবল মহাষ্টমীকল্পারাম্ভ এবং মহাষ্টমীবিহিত পূজা প্রশস্তা। পুর্বাহ্নের মধ্যে বীরাষ্টমী ও মহাষ্টমীর ব্রতোপবাস।

সন্ধিপূজারম্ভ:

সময় – সকাল ১০টা ৫৮ মিনিট ৪১ সেকেন্ডে সন্ধিপুজো শুরু হবে।

বলিদান:

সময় – সকাল ১১টা ২২ মিনিট ২৯ সেকেন্ড থেকে।

সন্ধি পূজা সমাপন:

সময় – শেষ হবে সকাল ১১টা ৪৬ মিনিট ৪১ সেকেন্ডে।

বেণী মাধব শীল

অষ্টমী তিথি আরম্ভ:

বাংলা তারিখ – ৬কার্তিক, ১৪২৭, শুক্রবার।

ইংরেজি তারিখ – ২৩/১০/২০২০

সময় – সকাল ৬টা ৫৮ মিনিট থেকে।

অষ্টমী তিথি শেষ:

বাংলা তারিখ – ৭কার্তিক, ১৪২৭, শনিবার।

ইংরেজি তারিখ – ২৪/১০/২০২০

সময় – সকাল ৬টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

সন্ধিপূজা:

সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটের পর সন্ধি পূজা আরম্ভ।

সকাল ৬টা ৫৯ মিনিটের পর বলিদান।

সকাল ৭টা ২৩ মিনিটের মধ্যে সন্ধিপূজা শেষ।

সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটের মধ্যে শ্রীশ্রী শারদীয়া দুর্গাদেবীর মহাষ্টমী বিহিত পূজা, মহাষ্টমাদি কল্পারম্ভ (পঞ্চমকল্প) এবং কেবল মহাষ্টমী কল্পারম্ভ প্রশস্তা (ষষ্ঠকল্প) ।বীরাষ্টমী এবং মহাষ্টমীর ব্রতোপবাস।শ্রীশ্রীকালিকাদেব্যাবিভাব।শ্রীশ্রীমহিষমর্দিনীদেব্যাবিভাব।মহারাত্রি নিমিত্তানুষ্ঠান।কুমারীপূজা।

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত মতে

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.